1. admin@jjtv.tv : admin :
July 28, 2021, 3:47 am

ঢাবি শিক্ষার্থীরা এখন থেকে কার্ড-মোবাইলে ফি দেবেন

Reporter Name
  • Update Time : Wednesday, October 14, 2020
  • 121 Time View

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব অটোমেশনের উদ্বোধন করা হয়েছে। এর ফলে কার্ড ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে যেকোনো ফি জমা দিতে পারবেন ঢাবি শিক্ষার্থীরা।
বুধবার অধ্যাপক আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ হিসাব অটোমেশনের উদ্বোধন করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, এর মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামগ্রিক ব্যবস্থাপনায় গতিশীলতা আসবে এবং সব ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে। প্রশাসনের সব স্তরে এ সুবিধা পৌঁছে দিতে হবে। এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তব রূপ লাভ করায় তিনি প্রধানমন্ত্রী ও তার সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন-এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজী অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মো.হাসানুজ্জামান, হিসাব সংক্রান্ত কম্পিউটারাইজেশন কমিটির (বিশেষজ্ঞ কমিটি) আহ্বায়ক অধ্যাপক শান্তি নারায়ণ ঘোষ এবং কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, এই অটোমেশনের আওতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ডিজিটালাইজড রসিদ সংগ্রহ করে তাদের বেতন ও যাবতীয় ফি জনতা ব্যাংকের যেকোনো শাখায় জমা দিতে পারবে। এছাড়া মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমেও যেকোনো বাণিজ্যিক ব্যাংকের কার্ড বা মোবাইল ব্যাংকিং (বিকাশ, রকেট, নগদ, শিওরক্যাশ ইত্যাদির সাহায্যে) যেকোনো স্থান থেকে জমা দিতে পারবে।

টাকা জমা দেয়া হলে জমার তথ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাবে যুক্ত হবে। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের খাতের সব আয়/ব্যয়, বিভিন্ন খাতের আর্থিক বিবরণী এবং অর্থবছরের বাজেট দ্রুততম সময়ে তৈরি করা সম্ভব হবে।

সূত্র জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতন, পেনশন, ইনকাম ট্যাক্স, ইন্স্যুরেন্স, ব্যাংক লোন, প্রভিডেন্ট ফান্ড, বেনিভোলেন্ট ফান্ড, শিক্ষকদের পরীক্ষা সংক্রান্ত বিল,বিভিন্ন ট্রাস্ট ফান্ডের হিসাব ইত্যাদি এই অটোমেশনের ফলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সম্পন্ন হবে। এছাড়া, সরকারের বিভিন্ন দফতর/সংস্থার চাহিদা মাফিক বিভিন্ন আয় ব্যায়ের হিসাব বিবরণী দ্রুততম সময়ে সরবরাহ করা সম্ভব হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category